ওয়েবসাইটে ভিজিটর বাড়ানোর উপায়

ওয়েবসাইট ভিজিটরঃ আপনারা যখন একটা ব্লগ বা ওয়েবসাইট বানাবেন তখন আমাদের সব থেকে জরুরি কাজ হলো "ওয়েবসাইট ভিজিটর বা ব্লগে ট্রাফিক নিয়ে আসা"। আমি এই আর্টিকেলটি লিখেছি যারা নতুন ব্লগিং নিয়ে কাজ শুরু করেছেন তাদের জন্য। তারা কিভাবে ব্লগ ওয়েবসাইটে ভিজিটর বা ট্রাফিক (blog traffic) আনবেন। (ব্লগ ভিজিটর)

বর্তমানে প্রতিদিন মানুষরা হাজার হাজার ওয়েবসাইট তৈরি করে লক্ষ লক্ষ আর্টিকেল পাবলিশ করছেন। তাদের মধ্যে ৭৫% মানুষরা কিছুদিন কাজ করার পরে কাজ ছেড়ে দিচ্ছে। কাজ ছেড়ে দেওয়ার পরে তারা বলে "ব্লগ থেকে টাকা আয় করা সম্ভব না"।



কারণ, তারা একটি ওয়েবসাইট বানানোর থেকে শুরু করে আর্টিকেল লেখার সব কাজ করেছেন কিন্ত আসলে তারা জানেন না কিভাবে "ব্লগে ভিজিটর" বা ট্রাফিক আনতে হবে। এজন্য তাদের ব্লগিং ক্যারিয়ারে তারা সফলতা পায়নি। আমি নিজে প্রথম যখন ব্লগিং শুরু করি তখন আমি ও জানতাম না কিভাবে blog traffic আনতে হবে। যে কারণে আমি প্রথম ব্লগ নিয়ে বেশি দিন কাজ করতে পারিনি।


ব্লগ ট্রাফিক বা ভিজিটর কি? (What is blog traffic)


আমরা সবাই অনেক কষ্ট করে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করে তার চেয়ে বেশি কষ্ট করে সেই ওয়েবসাইটে আর্টিকেল লিখে পাবলিশ করি। আমরা যে আর্টিকেল গুলো ইন্টারনেটের মাধ্যমে ওয়েবসাইটে পাবলিশ করি সেটা যদি ভিজিটর্সরা না পড়ে তাহালে, আর্টিকেল লেখার মানে হলো কি। আসলে প্রতিটা ব্লগার একটি মাএ উদ্দেশ্য নিয়ে আর্টিকেল লিখে যাতে তার আর্টিকেল গুলো ভিজিটর্সরা পড়ে।


একটি ব্লগ ওয়েবসাইটে যখন বিভিন্ন মাধ্যম থেকে ভিজিটর্সরা আসে যেমন- সোশ্যাল মিডিয়া, গুগল সার্চ ইঞ্জিন থেকে আশা মানুষের সংখ্যাকে বলা হয় ভিজিটর্স বা ট্রাফিক। তাহালে, আশাকরি আপনারা বুঝতে ভিজিটর বা ট্রাফিক কি।


ওয়েবাইট ভিজিটর বা ট্রাফিক কেন জরুরি?


আমি প্রথমে বলেছি একটি ব্লগারের আর্টিকেল লেখার প্রধান উদ্দেশ্য হলো ওয়েবসাইট ভিজিটর বা ট্রাফিক নিয়ে আসা। এখন আসল কথা হলো কেন আপনি ব্লগে অধিক পরিমানে ভিজিটর বা ট্রাফিক চান? কি তাইতো? আসলে আপনি যত বেশি পরিমানে ভিজিটর বা ট্রাফিক সাইটে আনতে পারবেন ততো বেশি টাকা আয়ের সুযোগ থাকবে।আর এই টাকা আয় হবে "গুগল এডসেন্স" থেকে।


বর্তমানে ব্লগ ওয়েবসাইটের এই ব্যবসা প্রচুর লাভজনক। কিন্ত মনে রাখবেন, এই ব্যবসার প্রধান হাতিয়ার হলো "ভিজিটর বা ট্রাফিক"। যত বেশি পরিমানে মানুষরা আপনার ওয়েবসাইট ভিজিট করবে ততো বেশি পরিমানে টাকা আয়ের সুযোগ থাকবে আপনার কাছে। তাই আপনি যদি ওয়েবসাইট থেকে টাকা আয় করতে চান তাহালে প্রথমে ভাবতে হবে কিভাবে ওয়েবসাইট ভিজিটর বাড়াতে হবে। আশাকরি আপনারা বুঝতে পারছেন  কেন ওয়েবসাইট ভিজিটর বা ট্রাফিক বাড়ানো জরুরি।


কিভাবে ওয়েবসাইটে ভিজিটর বা ট্রাফিক আসবে?


নতুন ব্লগারদের মনে সব সময় একটি প্রশ্ন ঘুরপাক খাই যে, ব্লগ ওয়েবসাইটের জন্য ভিজিটর বা ট্রাফিক কিভাবে কিভাবে বা কোথায় থেকে আনবেন। ওয়েবসাইটে ভিজিটর আনার জন্য নিচের নিয়ম গুলো ফলো করুন।


(১) Search Engine Google, Bing, Yahoo


Google, Bing, Yahoo সার্চ ইঞ্জিনের মাধ্যমে ব্লগ ওয়েবসাইটে প্রচুর পরিমানে ভিজিটর আনার সব চেয়ে ভালো উপায়। তবে, অন্যান্য যে সার্চ ইঞ্জিন গুলো রয়েছে তার মধ্যে Google search engine থেকে ৯৫% organic traffic Visitors আসার সম্ভবনা বেশি। আমার ওয়েবসাইটে ও প্রতিদিন ভালো পরিমানে google search থেকে ট্রাফিক আসে। মনে রাখবেন, ব্লগ ওয়েবসাইটে ভিজিটর বা ট্রাফিক আনার সব চেয়ে ভালো মাধ্যম হলো গুগল সার্চ ইঞ্জিন।


কিভাবে গুগল সার্চ ইঞ্জিন থেকে ভিজিটর বা ট্রাফিক পাবেন?


গুগল সার্চ ইঞ্জিন থেকে ভিজিটর পাবার জন্য আপনার ওয়েবসাইটকে google search console এ গিয়ে রেজিস্টার করতে হবে। রেজিস্টার করার জন্য আপনাকে একটি গুগল একাউন্ট বা জিমেইল একাউন্ট প্রয়োজন হবে। google search console আপনার ওয়েবসাইট রেজিস্টার করার দুইদিন পরে গুগলে আপনার ওয়েবসাইটের সকল পেজ গুলো দেখাবে।


আপনি তখন নিজের ওয়েবসাইটের ডোমেন নাম লিখে গুগলে সার্চ দিবেন। দেখবেন গুগল সার্চে দেখাচ্ছে কি না। তারপরে আপনি ওয়েবসাইটে যত গুলো আর্টিকেল লিখবেন সে সব গুলো google search console এ যুক্ত হয়ে যাবে। আপনি seo friendly articles লিখে ওয়েবসাইটে পাবলিশ করলে ভালো পরিমানে ভিজিটর পাবেন। তার জন্য আপনার আর্টিকেল গুলো অবশ্য SEO করতে হবে। না হলে সার্চ ইঞ্জিন থেকে ভিজিটর পাওয়া অনেক কষ্ট কর।


(২) সোশ্যাল মিডিয়া থেকে ভিজিটর


আমারা সবাই সোশ্যাল মিডিয়া যেমন- Facebook, Instagram, Twitter ব্যবহার করি। আপনার ওয়েবসাইটের লিংক যত বেশি সোশ্যাল মিডিয়াতে থাকবে ততো বেশি ট্রাফিক পাবেন। মনে করেন, আপনার একটি ফেসবুক পেজ রয়েছে। সেখানে ৮০,০০০ মেম্বার্স রয়েছে। এখন আপনি যদি ঔ পেজে ওয়েবসাইটের লিংক শেয়ার করেন তাহালে, সর্বনিম্ন ১০,০০০ ভিজিটর্স বা ট্রাফিক পাবেন। এখন আপনি যদি দিনে ২ থেকে ৩ টা লিংক শেয়ার করেন তাহালে ২০ থেকে ৩০ হাজার ট্রাফিক পাবেন। এভাবে আপনি সোশ্যাল মিডিয়াতে লিংক শেয়ার করে ভিজিটর আনতে পারবেন।


(৩) ব্লগ কমেন্ট থেকে ভিজিটর


আমরা যখন অন্যের ব্লগে গিয়ে আর্টিকেল পড়ি তখন ঔ আর্টিকেলের নিচে কমেন্ট (comment) বলে একটি অপশন থাকে। আমরা এই কমেন্টে কিছু লিখতে পারি। যেমন- এখানে আপনি আপনার নিজের ওয়েবসাইটের url দিয়ে ও কমেন্ট করতে পারবেন। এটা থেকে আপনি একটি হাই-কোয়ালিটি ব্যাকলিংক পেয়ে যাবেন। তার সাথে ভিজিটর ও পেয়ে যাবেন।


(৪) Quora থেকে ভিজিটর


Quora হলো একটি প্রশ্ন উত্তর সাইট। এখানে সবাই জানার জন্য প্রশ্ন করে। আর যারা এই প্রশ্নের উত্তর জানেন তারা সবাই উত্তর দেয়। Quora website এ প্রতিদিন লক্ষ লক্ষ মানুষ ভিজিটর করে তাদের প্রশ্নের উত্তর পাবার জন্য। আপনি এখানে নিজের ওয়েবসাইটের সাথে জড়িত প্রশ্ন গুলোর সাথে মিল রেখে টফিক গুলো খুঁজে বের করবেন। তারপরে সেখানে নিজের ওয়েবসাইটের লিংক দিয়ে কিছু লিখে দিবেন। যেন মানুষরা লেখাটি পড়ে আপনার ওয়েবসাইটে যায়। এই লিংকের ফলে মানুষরা আপনার ওয়েবসাইটে যাবে এবং আপনি ভালো পরিমানে ভিজিটর বা ট্রাফিক পাবেন। সাথে সাথে একটি Backlinks ও পাবেন।


(৫) গেষ্ট পোষ্ট থেকে ভিজিটর


আপনারা হয়তো অনেকে জানেন না গেষ্ট পোষ্ট কি? গেষ্ট পোষ্ট হলো আমাদের ওয়েবসাইটের টফিকের সাথে মিল রেখে অন্য ব্লগে আর্টিকেল লিখে অতিথি লেখক হিসাবে জমা দেওয়া। আর প্রক্রিয়াকে বলা হয় গেষ্ট পোষ্ট (guest posting). আপনি যখন অন্যের ব্লগ ওয়েবসাইটের জন্য আর্টিকেল লিখবেন তখন সেখানে আপনার ওয়েবসাইটের একটি লিংক যুক্ত করে দিবেন। যদি  লিংক যুক্ত না করেন তাহালে, গেষ্ট পোষ্ট করে কোনো লাভ হবে না।


এই আর্টিকেল থেকে আমরা শিখলাম ওয়েবসাইটে ভিজিটর বা ট্রাফিক বাড়ানোর উপায়। আর্টিকেল সম্পর্কে কোনো প্রশ্ন থাকলে নিচে কমেন্ট করুন এবং ভালো লাগলে অবশ্য শেয়ার করবেন।


Post a Comment

2 Comments

  1. The stated web site is like a first rate help for all the humans attempting to connect with a person like them, for similar records take a look at their internet site! They may be incredible!
    agencies in SF

    ReplyDelete