পেমেন্ট মেথড নিয়ে ফ্রিল্যান্সিংপরামর্শ - ABC Media BD | অনলাইন ইনকাম, ব্লগ, অনলাইন টিপস

Breaking

Thursday, October 22, 2020

bdnews

পেমেন্ট মেথড নিয়ে ফ্রিল্যান্সিংপরামর্শ

পেমেন্ট মেথড নিয়ে ফ্রিল্যান্সিংপরামর্শ
পেমেন্ট মেথড নিয়ে ফ্রিল্যান্সিংপরামর্শ

সুপ্রিয় পাঠক ফ্রিল্যান্সার হতে গেলে প্রথম যে বিপত্তির স্বীকার হতে হয় তা হল পেমেন্ট মেথড। ব্যক্তিগতভাবে আমি যখন প্রথম প্রথম আপওয়ার্কে কাজ বিড করি তখন এই পেমেন্ট মেথড নিয়েই হতাম বিড়ম্বনার স্বীকার। 

তাই আমার এই পোস্টের মাধ্যমে চেষ্টা করবো আপনাদের কিছুটা স্বস্তি দিতে আশা করি আর্টিকেলটি পড়ে অন্তত পেমেন্ট মেথড নিয়ে আর তেমন চিন্তা করতে হবে না।

বর্তমান বিশ্বে অনলাইন ইনকাম মার্কেটে ফ্রিল্যান্সারদের অনেক চাহিদা রয়েছে। ধারনা করা হচ্ছে অদূর ভবিষ্যতে এটিই হবে একমাত্র জনপ্রিয় স্বাধীন ব্যবসা। যথেষ্ট পরিমান চাহিদা থাকার কারনে এই ক্ষেত্রটি হয়ে অভূতপূর্ব প্রতিযোগিতামূলক। 

যার কারনে এই সেক্টরে কাজ করতে গেলে নিজেকে অধিক থেকে অধিকতর দক্ষ হিসেবে গড়ে তুলতে হবে যার জন্য প্রশিক্ষনের কোন বিকল্প আছে বলে আমি মনে করি না।

ক্রিপ্টোকারেন্সি প্রুফ অফ স্টেক কি?


এবার ধরুন আপনি যেকোনো একটি বিসয়ে কাজ করার জন্য প্রস্তুত। কাজটি পেতে প্রথমেই আপনার মাথায় যে প্রশ্নটি আসবে তাহলো আপনি কাজটি করার পর কোন পেমেন্ট মেথডে টাকা হাতে পাবেন। 

কারন বেশির ভাগ ফ্রিল্যান্সিং প্লাটফর্ম গুলো ইউএসডি বেইজড পেমেন্ট করে থাকে।
আমার অভিজ্ঞতা থেকে বলতে পারি যে, আপওয়ার্কে প্রথম যেদিন আমি বিড করে সাড়া পেয়েছিলাম সেদিন পেমেন্ট নেয়ার মত কোন ইন্টারন্যাশনাল অ্যাকাউন্ট ছিল না। পরবর্তীতে একে একে আমি মোটামুটি সবগুলো প্রয়োজনীয় অ্যাকাউন্ট গুলি করে নিই।
সাধারনত নিম্নলিখিত অ্যাকাউন্ট গুলো আপনার লাগবেঃ

পেমেন্ট মেথড নিয়ে ফ্রিল্যান্সিংপরামর্শ

১। Paypal
২। Skrill
৩। Payoneer
৪। Payeer
এছাড়াও লাগতে পারে Western Union Money Transfer
বিভিন্ন অ্যাড প্রদর্শনকারী প্ল্যাটফর্ম গুলো বর্তমানে বিটকয়েন, ইথেরিয়াম, লাইটকয়েন, সাতশি, বিটকয়েন ক্যাশ ইত্যাদি মাধ্যমেও পেমেন্ট করে থাকে। এই ধরনের সাইটগুলো থেকে টাকা নিতে হলে আপনাকে অ্যাকাউন্ট করতে হবে কয়েনবেসে।


তবে মনে রাখবেন কয়েনবেস থেকে টাকা পেতে আপনাকে বাংলাদেশী পেমেন্ট মেথড বিকাশ কিংবা নগদ অ্যাকাউন্ট করে রাখতে হবে। আশা করি বাংলাদেশী পেমেন্ট মেথড গুলো নিয়ে কথা না বললেও চলবে। তার চেয়ে বরং অন্য পেমেন্ট মেথড গুলো সম্পর্কে জানা যাক।
Paypal:

বর্তমানে যতগুলো পেমেন্ট মেথড রয়েছে তার মধ্যে বহুল ব্যবহৃত পেমেন্ট মেথড হল এই পেপাল। আপনি সমগ্র বিশ্বের যেকোনো প্রান্ত থেকে টাকা হাতে নিতে পারবেন। ভাবছেন বাংলাদেশের মানুষরা কি এখানে অ্যাকাউন্ট করতে পারে? আপনি ধারনা কিছুটা সঠিক, তবে সম্পূর্ণ না। আপনি বাংলাদেশ থেকেই এই পেমেন্ট মেথড এর সুবিধা ভোগ করতে পারেন।

ক্রিপ্টোকারেন্সি Proof of Work কি?


বিশ্বাস হচ্ছে না তাহলে এই লিঙ্কে https://paypal.com/cy গিয়ে দেখুন অ্যাকাউন্ট করা যায় কিনা। পরবর্তী
কোন পোস্টে ভেরিফাই করার নিয়ম সহ পুরো টিউটোরিয়ালতা আপনাদের সামনে তুলে ধরব সে পর্যন্ত এই সাইটে নিয়মিত চোখ রাখুন। মনে রাখবেন ভেরিফাই করার জন্য আপনাকে Payoneer এ অ্যাকাউন্ট করতে হবে।


Skrill:
অনেকগুলো পেমেন্ট মেথড এর মধ্যে Skrill অন্যতম একটি পেমেন্ট মেথড। এটিতে অ্যাকাউন্ট করা একদম সহজ এই লিঙ্কে https://account.skrill.com/signup?rid=104337046 [এই লিঙ্কটিতে আমার রেফারেল কোড দেয়া রয়েছে] গিয়ে আপনার যাবতীয় তথ্য সমুহ প্রদান করে অ্যাকাউন্ট করে নিন। আশা করি তেমন সমস্যা হবে এটি সোশ্যাল মিডিয়ায় অ্যাকাউন্ট করার মতই একটি ব্যপার।

পেমেন্ট মেথড নিয়ে ফ্রিল্যান্সিংপরামর্শ
পেমেন্ট মেথড নিয়ে ফ্রিল্যান্সিংপরামর্শ

Payoneer:

গ্লোবাল পেমেন্ট মেথড গুলোর মধ্যে এটিই সহজলভ্য একটি প্লাটফর্ম। ফ্রিল্যান্সিং এর কাজ করে পেমেন্ট নিতে
হলে আপনার এখানে অ্যাকাউন্ট থাকা অতীব জরুরী। এটিও খুব কঠিন বিষয় নয়, এই লিঙ্কে
http://share.payoneer.com/nav/s5EvTsenAVdVlHaLwEx1zimr3_vH1uTITTlN1eAZrn610lfuvQDmI99Av
BnTtkPaH5Jg_RlaPoSKdGeOJk5adA2 [এই লিঙ্কটিতে আমার রেফারেল কোড দেয়া রয়েছে] গিয়ে
আপনার যাবতীয় তথ্য সমুহ প্রদান করে অ্যাকাউন্ট করে নিন।

কিভাবে সহজে পাসপোর্ট করবেন? পাসপোর্টের A টু Z


হ্যাঁ এখানে একটি বিষয় আছে তা হল অ্যাকাউন্ট ভেরিফিকেশন। আপনার যদি পাসপোর্ট, জাতীয় পরিচয় পত্র, বা কোন ইউটিলিটি বিল, ড্রাইভিং লাইসেন্স এর যেকোনো একটি থেকে থাকে তাহলে তার কপি সাবমিট করলেই অ্যাকাউন্ট ভেরিফাই হয়ে যাবে। অ্যাকাউন্ট করতে গিয়ে কোন সমস্যার সম্মুখীন হলে কমেন্ট করে জানাবেন।

পেমেন্ট মেথড নিয়ে ফ্রিল্যান্সিংপরামর্শ
পেমেন্ট মেথড নিয়ে ফ্রিল্যান্সিংপরামর্শ


তো বন্ধুরা আশা করি উপরোক্ত আলোচনা থেকে ফ্রিল্যান্সিং এ কাজ করার ক্ষেত্রে পেমেন্ট মেথড নিয়ে
আপনার সমস্যার কিছুটা হলেও নিরসন ঘটবে। তাই উদীয়মান ফ্রিল্যান্সারদের প্রতি এইটাই পরামর্শ যে, কোন কিছুতে ঘাবড়ে যাবেন না যেকোনো সমস্যায় সিনিয়রদের পরামর্শ নিবেন।

অ্যাপ ডেভেলপার কাজ করে প্রতি মাসে ১০০০ ডলার আয় করুন


আর পেমেন্ট মেথড নিয়ে তো চিন্তা নয়ই। খেয়াল করে দেখুন কিছু পেমেন্ট মেথড এর কথা আমি উল্লেখ করেছি কিন্তু বিস্তারিত বলিনি। এই সাইট গুলোতে অ্যাকাউন্ট করতে কোন দিক নির্দেশনার প্রয়োজন নেই কেবলমাত্র ইন্টারনেটে সার্চ করেই আপনি অ্যাকাউন্ট করে নিতে পারবেন।


আর্টিকেলটি এই পর্যন্তই, এই সাইট বা লিখা সম্পর্কে আপনাদের ভালো লাগা, মতামত, পরামর্শ, প্রশ্ন বা কোন চাহিদা থাকলে কমেন্ট করে জানানোর অনুরোধ রইল। আপনাদের মন্তব্য আমাদের অনুপ্রানিত করবে। আর আর্টিকেলটি যদি এততুকু ভালো লেগে থাকে তাহলে শেয়ার করতে ভুলবেন না।
সময় নিয়ে পড়ার জন্য অশেষ ধন্যবাদ। সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন।

লেখকঃ জুয়েল দাশ প্রভাষ

3 comments:

  1. We valued that their team continually challenged us to improve our approach.
    brand positioning agency

    ReplyDelete
  2. প্লাম্বিং মিস্ত্রি পাওয়া যায়

    ReplyDelete