এন্ড্রয়েড ফোন গরম হয় কেন? (সমাধান ও করণীয়) - ABC Media BD

Breaking

Saturday, January 18, 2020

এন্ড্রয়েড ফোন গরম হয় কেন? (সমাধান ও করণীয়)


বন্ধরা আমরা প্রায় সবাই এন্ডয়েড ফোন ব্যবহার করি। তো আজকে আমি এই আর্টিকেলের মাধ্যমে জানবো "এন্ড্রয়েড ফোন গরম হয় কেন" ও "মোবাইল গরম হলে কি করতে হবে" এর সমাধান ও করণীয় নিয়ে কথা বলবো আপনাদের সাথে। আশাকরি আপনাদের কাজে আসবে।

এন্ড্রয়েড ফোন গরম হয় কেন? (সমাধান ও করণীয়)
এন্ড্রয়েড ফোন গরম হয় কেন? (সমাধান ও করণীয়)

আমরা যখন এন্ডয়েড ফোন ব্যবহার করি তখন সেটা গরম অনুভাব করি। কি ঠিক বলছি তো? তবে এন্ড্রয়েড ফোন গরম হওয়াটা স্বাভাবিক। এরও একটা কারণ রয়েছে বর্তমানে স্মার্টফোন গুলোতে সবাই ভারি অ্যাপস (Apps), গেম (Game), ফ্যাকশন (Functions) ব্যবহার করি। যার ফলে প্রায় সময় আমাদের ফোনে অনেক চাপ পড়ে যায়। যার কারণে এন্ড্রয়েড ফোন গরম হওয়াটা স্বাভাবিক।
তবে এখন এই সময়েও নিজে নিজে অনেক ফোন গরম হয়ে যায় কোনো কারন ছাড়া। অনেক ফোন আছে যেগুলো মুভি (movies) দেখার সময় অনেক গরম হয়ে যায়। ফোন এতোটাই গরম হয়ে যায় যে মনে হয় ফোন বিস্ফোরণ হয়ে যাবে। তখন আমাদের মনে ভয়ের সৃষ্টি হয়। তার জন্য আপনাকে সর্তক হতে হবে এবং এটার সমাধান করাটা খুব জরুরী।
ফেসবুক থেকে টাকা আয়
 আমাদের অবশ্যব জানতে হবে কি কারণে এন্ড্রয়েড ফোন গরম হচ্ছে এবং এন্ড্রয়েড ফোন গরম হলে আমাদের কি করতে হবে এটা আমি এই আর্টিকেলে বিস্তারিত ভাবে নিচে আলোচনা করবো। আপনারা মনোযোগ দিয়ে পড়বেন।

এন্ড্রয়েড ফোন গরম হয় কেন?


সাধারণত একটি এন্ড্রয়েড ফোন গরম হওয়ার জন্য অনেক গুলো কারণ থাকতে পারে। কিন্ত বলা যাবে না একটি অথবা দুইটি বিশেষ কারণে ফোন গরম হচ্ছে এমন কথা বললে হবে না। এমন ও অনেক সময় এন্ড্রয়েড ফোন গরম হয় ফোনে যেসব অপ্রয়োজনীয় অ্যাপস গুলো থাকে সেই গুলোর জন্য।

এছাড়াও খারাপ ব্যাটারি, চার্জার, হার্ডওয়্যারের সমস্যা, চার্জে দিয়ে ব্যবহার করলে, ফোনে বিভিন্ন ভাইরাসের কারণে এন্ড্রয়েড ফোন গরম হয়ে যেতে পারে। এখন আসল কথা হচ্ছে প্রতিটা এন্ড্রয়েড ফোন অথবা স্মার্টফোন কিছু পরিমানে গরম হবে। কিন্ত সমস্যা না। এটাকে সমস্যা মনে করবেন তখন যখন আপনি এটাকে গরমের জন্য হাতে ধরতে পারবেন না তখন সমস্যা বলে মনে করবেন। এন্ড্রয়েড ফোন গরম হওয়ার জন্য কিছু কিছু কারণ অবশ্যব থাকবে, সেগুলো নিচে বিস্তারিত ভাবে আলোচনা করছি।


এন্ড্রয়েড ফোন গরম হওয়ার কাররণ কি কি?


(১) ফোনে ডিসপ্লের ব্রাইটনেস ফুল থাকা

আমরা অনেকে ফোনের ব্রাইটনেস ফুল করে রাখি সব সময়। কিন্ত এটা আমরা কোনো সমস্যা বলে মনে করি না। যার ফলে এতে ব্যাটারির উপর অনেক চাপ পড়ে যায় এবং ব্যাটারির গরম হতে থাকে। এতে আপনার ফোন এবং চোখের দুইটার উপর অনেক প্রভাব ফেলে। তার জন্য আপনারা ডিসপ্লের ব্রাইটনেস সব সময় কম দিয়ে ব্যবহার করবেন।

(২) মোবাইলে সব সময় Wi-Fi On করে রাখা

আমাদের যাদের বাসায়, অফিসে যেখানে Wi-Fi থাকে যেখানে আমাদের ফোনে সব সময় Wi-Fi On করে রাখি। অনেক সময় আমরা প্রয়োজন ছাড়া Wi-Fi on করে রাখি। এই ভাবে প্রতিদিন চলতে একই ভাবে। সব সময় Wi-Fi on রাখার কারণে ফোন গরম হয়। সেজন্য প্রয়োজন ছাড়া Wi-Fi বন্ধ করে রাখবেন। এতে ফোন গরম হবে কম হবে।


(৩) ফোনে অতিরিক্ত গেম খেলা যাবে না


আমাদের মধ্যে এমন অনেক আছে যারা গেমের প্রতি অসক্ত হয়ে পড়েছেন। আপনি যখন ভারি গেম ফোনে ইনস্টাল করে খেলেন তখন ফোনের প্রসেসর (processor)রেম (ram) এর উপর অনেক প্রভাব পড়ে। আপনার প্রসেসর ও রেম যদি কম হয়ে থাকে তাহালে, আপনি ফোনে ভারি গেম ব্যবহার করবেন। এতে ফোনের উপর অনেক প্রভাব পড়ে এবং ফোন প্রচুর গরম হয়।


(৪) অপ্রয়োজনীয় অ্যাপস ব্যবহার করা


যারা এন্ড্রয়েড ফোন বা স্মার্টফোন ব্যবহার করে তারা প্রায় সবার ফোনে অপ্রয়োজনীয় কিছু অ্যাপস থাকে। যেগুলো তাদের কোনো কাজে লাগে না বা কোনো কাজে আসে না। ফোন বেশির ভাগ গরম হয় অ্যাপসের কারণে। কারণ আমরা যখন ফোন বন্ধ করে রাখি তখন ও কিন্ত এমন কিছু কিছু অ্যাপস রয়েছে যে গুলো সব সময় কাজ করতে থাকে অথবা চলতে থাকে। এতে ফোনের প্রসেসরের উপর চাপ পড়ে এবং ফোন গরম করে তুলে।

(৫) বাজে ব্যাটারি ব্যবহার করা

আমাদের এন্ড্রয়েড ফোনের বয়স যখন ৭ থেকে ৮ মাসের বেশি হয়ে যায় তখন ব্যাটারির চার্জ ক্ষমতা কম হয়ে যায়। তখন আমরা কম দামের একটি ব্যাটারি বা বাজে কোয়ালটির ব্যাটারি বাজার থেকে কিনি নেয়। এই বাজে ব্যাটারির জন্য আমাদের ফোন গরম হয়। তার জন্য আপনারা সব সময় যে কোম্পানির ফোন সেই কোম্পানি কাস্টম কেয়ার থেকে আসল ব্যাটারি কিনবেন।

(৬) বাজে চার্জারে ফোন চার্জ দেওয়া


আপনার ফোনের চার্জার যখন নষ্ট হয়ে যাবে তখন আমরা সামনে সেই চার্জার পাই সেই চার্জার ব্যবহার করে ফোন চার্জ দিয়ে থাকি। এই সমস্ত চার্জার ব্যবহার করার ফলে অনেক দেরিতে চার্জ হয় বা চার্জ হতে অনেকটা সময় নেয়। আর এর সাথে সাথে ফোনও প্রচুর গরম হয়। তার জন্য এরকম চার্জারে কখনো ফোন চার্জ দেবেন না। আপনার ফোনের কাস্টম কেয়ার থেকে আসল চার্জার কিনবেন।

(৭) ফোনের সফটওয়্যার


অনেক সময় ফোন তার সফটওয়্যার এর কারণে গরম হয়ে থাকে। আর ফোন যদি সফটওয়্যার এর কারণে গরম হয় তাহালে মোবাইল এর দোকানে গিয়ে আপনি এটার সমাধান করতে পারবেন। তাছাড়া অনেক সময় ফোন reset অথবা format দিলেও এই সমস্যা থেকে সমাধান পাওয়া যায়। তবে সফটওয়্যার এর কারণে ফোন খুব কম গরম হয়ে থাকে।

মোবাইল ফোন গরম হলে কি করণীয় (কি করতে হবে)


বন্ধরা এন্ড্রয়েড ফোন গরম হয় কি কারণে সেটা তো আপনারা জেনে গেছেন। তাহালে চলুন এবার জেনে আসি "মোবাইল গরম হলে কি করতে হবে"। মোবাইল অধিক গরম হলে সার্ভিসিং সেন্টারে দেখানোর জন্য নিয়ে যান। কিন্ত সার্ভিসিং সেন্টারে নিয়ে যাবার আগে নিচের করণীয় গুলো চেষ্টা করে দেখতে পারেন।

(১) চার্জার চেক করুণ

আপনার মোবাইল ফোন যদি চার্জে দিলে গরম হয় তাহালে আপনি অবশ্যব চার্জার চেক করুন। এমন ও হতে পারে আপনার চার্জার নষ্ট হয়ে গেছে তার জন্য চার্জে দেবার সময় ফোন গরম হয়ে যাচ্ছে। আর সব সময় মোবাইল ফোন আসল চার্জার দিয়ে চার্জ দিবেন।

আপনার সিম কার এনআইডি (NID) দিয়ে রেজিস্ট্রেশন হয়েছে চেক করুন গ্রমীনফোন এয়ারটেল রবি বাংলালিংক টেলিটক

মনে রাখবেন ফোন ৮০ থেকে ৯০% এর বেশি চার্জ দিবেন না। ৯০% এর বেশি চার্জ হয়ে গেলে চার্জার খুলে রাখুন। আর ১৫% এর নিচে চার্জ চলে আসতে দিবেন না। ২০% চার্জ থাকা অবস্থায় আবার চার্জে বসিয়ে দিবেন। এতে ব্যাটারির স্বাস্থ্য ভালো থাকবে।


(২) মোবাইলের কেস (case) খুলে রাখুন

আমরা অনেকে যারা এন্ড্রয়েড ফোন অথবা স্মার্ট ফোন ব্যবহার করি তারা প্রায় সবাই ফোনের সাথে একটি অতিরিক্ত কভার লাগিয়ে রাখি। এর ফলে ফোনের গায়ে বাসাত লাগতে পারে না। আর ফোনকে আরো বেশি গরম করে তুলে। আপনার ফোনে যদি কেস (case) লাগানো না থাকে ফোন গরম হলে দ্রুত ডান্ডা হয়ে যাবে। তার জন্য ফোনের কেস (case) খুলে রাখবেন।

(৩) মোবাইলে অধিক চাপ দিবেন না


আমরা এমন অনেকে আসি যারা ফোনের ram, gpu এবং processor core না দেখে ফোনের উপর অতিরিক্ত চাপ দিয়ে ফেলি। ফোনের ক্ষমতার চেয়ে বেশি চাপ দেয় যার ফলে ফোনের ভিতরে গরম হওয়া শুরু করে। তার জন্য আমরা সব সময় হার্ডওয়্যারের ক্ষমতা অআনুসারে চাপ দিবেন। তাহালে ফোন গরম কম হবে।

(৪) মোবাইলের ব্রাইটনেস কমিয়ে রাখুন


আমরা অনেকে আছি সব সময় ফোনের ব্রাইটনেস ফুল ১০০% করে রাখি। এর ফলে ফোনের ডিসপ্লে গরম হতে থাকে। আর এই কারণে আপনার চোখের উপর প্রচুর প্রভাব ও পড়ে। তাই ব্রাইটনেস ২৫% এর মধ্যে রাখবেন। আর রাতে ফোনের ব্রাইটনেস ০% করে দিবেন।

(৫) অপ্রয়োজনীয় অ্যাপস ডিলেট করুন


আমাদের ফোনে যত বেশি অ্যাপ থাকবে ততো বেশি ফোনের উপর চাপ পড়বে। আর এর সাথে সাথে ব্যাটারির উপরও প্রভাব পড়বে। তার জন্য অপ্রয়োজনীয় অ্যাপস গুলো ডিলেট করে দিন। এতে ফোন অনেকটা হালকা হয়ে যাবে এবং হার্ডওয়্যারকে চাপ কম পড়বে। ফলে ফোন গরম হবে না।

সর্বশেষ


তাহালে বন্ধুরা আমি আশা করি "মোবাইল গরম হয় কেন" এবং "মোবাইল গরম হলে কি করণী" সেটা অবশ্যব বুঝতে পারছেন। আর কোনো বিষয়ে প্রশ্ন থাকলে নিচে কমেন্ট করবেন। ধন্যবাদ

No comments:

Post a Comment