ফ্রিল্যান্সিং কি? (What Is Freelancing) কেন ফ্রিল্যান্সিং শিখবেন? (A to Z) - ABC Media BD

Breaking

Saturday, December 21, 2019

ফ্রিল্যান্সিং কি? (What Is Freelancing) কেন ফ্রিল্যান্সিং শিখবেন? (A to Z)

আমি আমার আগের একটি আর্টিকেলে বলেছিলাম ইন্টারনেট থেকে "অনলাইন ইনকাম" করার নানা প্রকারের উপয়গগুলো। আর আজকে আমি আপনাদের সাথে নতুন একটি অনলাইন টাকা আয়ের বিষয়ে বললো। আর তার নাম হচ্ছে  ফ্রিল্যান্সিং (Freelancing) 
ফ্রিল্যান্সিং কি? (What Is Freelancing) কেন ফ্রিল্যান্সিং শিখবেন? (A to Z)
ফ্রিল্যান্সিং কি? (What Is Freelancing) কেন ফ্রিল্যান্সিং শিখবেন? (A to Z)

বর্তমানে ফ্রিল্যান্সিং (Freelancing) করে হাজার হাজার মানুষরা ঘরে বসে প্রতিমাসে লক্ষ লক্ষ টাকা আয় করছে। আবার অনেকে এতো পরিমানে টাকা আয় করছে যেটা আপনি ফুল টাইম চাকরি (full time job) করেও এতো টাকা আয় করা সম্ভব নয়।

আমরা সবাই জানি ফ্রিল্যান্সিং (Freelancing) একটি স্বাধীন পেশা। কিন্ত এই "ফ্রিল্যান্সিং করে স্বাধীন ভাবে আয়" করার জন্য আপনাদের কিছু গুরুত্বপূর্ণ (importantd) বিষয়ে জানতে হবে। এই গুরুত্বপূর্ণ বিষয় গুলো হচ্ছে-
(১) ফ্রিল্যান্সিং মানে কি?

(২) ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শুরু করবো?

(৩) ফ্রিল্যান্সিং করে কত টাকা আয় করা যায়?

(৪) আমি কি ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার তৈরি করতে পারবো?

(৫) ফ্রিল্যান্সিং শিখতে কেন ফ্রিল্যান্সিং কোর্স করতে হবে?

(৬) নতুনদের জন্য সেরা ফ্রিল্যান্সিং সাইট কোন গুলো?
আমি উপরের সমস্ত বিষয়গুলো সম্পর্কে আপনাদের জানাবো তাহালে আপনাদের কাছে ফ্রিল্যান্সিং (Freelancing) এর ব্যপারটা পরিস্কার হয়ে যাবে। আর আপনারা বুঝতে পারবেন ফ্রিল্যান্সিং কি? এবং ফ্রিল্যান্সিং করে কত টাকা আয় করা সম্ভব আপনাদের জন্য।

ফ্রিল্যান্সিং কি? (What Is Freelancing In Bangla)


ফ্রিল্যান্সিং (Freelancing) এমন একটি সহজ মাধ্যম যার দ্বারা আপনারা অনলাইনে কাজ করে প্রচুর টাকা আয় করতে পারবেন। যারা চাকরি (job) করেন তাদের সকাল ১০ থেকে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত অফিসের কাজ করতে হয়। 
আর ফ্রিল্যান্সিং (Freelancing) এর মাধ্যমে কাজ করে মানুষরা স্বনির্ভর থাকেন। তার জন্য বলা হয় Freelancing এর কাজ করা মানে স্বাধীন পেশা অথবা মুক্তপেশা। এটাও একটা ব্যবসা বলা হয়। আর এই ব্যবসার আপনি ইচ্ছা মতো কাজ করতে পারবেন, কোনো ধরাবাধা নিয়ম নেই।

যারা স্বাধীন হয়ে freelancing করেন তাদেরকে freelancer বলা হয়। বর্তমানে "ফ্রিল্যান্সিং সাইট,  ইন্টারনেট, সোস্যাল মিডিয়া " গুলোর মাধ্যমে freelancer রা নানা ধরনের কাজ খুজে নিয়ে, সেই সমস্ত কাজগুলো তাদের ক্লায়েন্টস (clients) দের নিদিষ্ট সময়ের মধ্যে দিয়ে তাদের কাজের বিনিময়ে ক্লায়েন্টের কাছ থেকে টাকা নিচ্ছেন।

আপনি যে কাজ করবেন এবং সেই কাজের বিনিময়ে ক্লায়েন্ট (client) এর কাছ থেকে কত টাকা নিবেন এই কাজেরর জন্য সেটা আগে থেকে ঠিক করে নিতে পারবেন। আপনি যখন সঠিক ভাবে সুন্দর করে কাজ করে দিবেন তখন আপনাকে টাকা দিয়ে দিবে। 

ফ্রিল্যান্সিং (Freelancing) এর কাজ করাটা সম্পর্ন আপনার নিজের উপর নির্ভর করে যে আপনি কত সময় ধরে কাজ করবেন। আপনি ফুল টাইম (full time) কাজ করবেন কি পার্ট টাইম (part-time) কাজ করবেন সেটা একান্ত আপনার উপরে নির্ভর করে।
ফ্রিল্যান্সিং এর কাজ নেয়ার জন্য আপনাকে অন্য কোথাও যেতে হবে না। আপনি ঘরে বসে ল্যাপটপ/কম্পিউটার এবং ইন্টারনেট এর কানেকশন দিয়ে কাজ নিতে পারবেন। এখানের পুরো সব কাজ আপনি ঘরে সবে করতে পারবেন। আমরা ফ্রিল্যান্সিং (Freelancing) কে একটা ভালো "বিসনেস (business)" হিসাবে ধরেও কাজ করতে পারি। 

ফ্রিল্যান্সিং কি? অথবা কাকে বলে?


"ফ্রিল্যান্সিং মানে হচ্ছে" আপনার নিজের যে কাজের উপর দক্ষতা (skills) রয়েছে, তার সাথে কাজ করা এবং সেই কাজের বিনিময়ে টাকা নেওয়া। অন্যদের প্রয়োজনে আপনাকে কাজ করে দিতে হবে এবং সেটার বিনিময়ে তারা আপনাকে টাকা দিবে। আর সেটার জন্য আপনার ভালো দক্ষতা (skills) থাকতে হবে।

আবার, ফ্রিল্যান্সিং (Freelancing) কে এমন ভাবে ও বলা যায় যে, ফ্রিল্যান্সিং হলো এমন একটি প্রক্রিয়া যেখানে আপনার জানা কাজ গুলো দক্ষতা ব্যবহার করে অন্যদের জন্য কাজ করেন। আর সেটার বিনিময়ে নিদিষ্ট অংকের টাকা নেন।
আপনারা ফ্রিল্যান্সিং (Freelancing) এর কাজ বিভিন্ন ধরনের করতে পারেন। যেমন- Graphic design, logo design, writing, selling service, digital service ইত্যাদি। মোট কথা যে কাজ আপনি পারেন, সেই কাজ লোকেরা আপনার দ্বারা করে নিবে।

এই সমস্ত কাজগুলো আপনারা ঘন্টার (hourly), ডেইলি (daily), সাপ্তাহিক (weekly) অথবা মাসে (monthly) হিসাবে করতে পারবেন। মোট কথা আপনার ইচ্ছা স্বাধীনভাবে করতে পারবেন। আপনার নিজের মধ্যে যদি দক্ষতা না থাকে তাহালে কিন্ত আপনি কাজ করতে না এবং মানুষরা আপনাকে কাজ দিবে না।
তাহালে আমি আশা করবো ফ্রিল্যান্সিং কি? এই বিষয়ে আপনারা পুরোপুরি ভাবে বুুঝতে পারছেন। 


কিভাবে ফ্রিল্যান্সিং শুরু করবো? (How to start freelancing)


freelancing সর্বপ্রথমে শুরু করার জন্য আপনার দরকার হবে ইন্টারনেট (Internet). আসলে বর্তমানে ইন্টারনেটের ব্যবহার কিন্ত খুব বিস্তর লাভ করেছে। প্রায় সবাই ইন্টারনেট ব্যবহার করে। 
কারণ, আপনি যখন অনলাইনে আপনার নিজের জন্য কাজ খুঁজবেন, আবার যখন কাজ শেষ করে ক্লায়েন্ট (client) কে কাজ জমা দিবেন তখন কিন্ত Internet এর প্রয়োজন হবে। ইন্টারনেট ছাড়া আপনি কখনো ফ্রিল্যান্সিং (Freelancing) এর কাজ করতে পারবেন না।
ইন্টারনেটের মাধ্যমে টাকা আয় করার জন্য আপনার নতুন নতুন কাজ অথবা প্রজেক্টস (projects) এর দরকার হবে। আর তার জন্য নিজের কাজের দক্ষতা (skills) প্রচার করা অথবা মারকেটিং (marketing) করতে হবে ইন্টারনেটার দ্বারা। মারকেটিং (marketing) করার জন্য কিছু ওয়েবসাইট হচ্ছে - freelancing marketing, social media groups, social media website ইত্যাদি।

আপনি যখন নিজের দক্ষতা (skills) প্রচার অথবা মারকেটিং (marketing) করবেন তখন মানুষরা জানতে পারবে যে আপনি কি বিষয়ে বিশেষজ্ঞ বা এক্সপার্ট এবং কি কি কাজ আপনি করতে পারেন।এতে আপনার কাজের চাহিদা বেড়ে যাবে। 

মনে করেন, আমি নিজে একজন Blogger SEO বিশেষজ্ঞ বা এক্সপার্ট। এখন আমার এই বিষয়টা যদি আপনাদেরকে না বলি তাহালে আপনারা কি ভাবে জানবেন। এজন্য প্রথমে আপনাকে প্রচার বা মারকেটিং করে মানুষকে জানাতে হবে যে আপনি কোন বিষয়ে বিশেষজ্ঞ বা এক্সপার্ট।

আপনি যদি ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ারে নিজের পরিচয় ভালো ভাবে তুলে ধরতে পারেন, তাহালে মানুষরা আপনাকে কাজ দিবে এবং আপনার উপর ভরসা করবে। আপনি যদি নিজের নামে একটি ভালো ব্র্যান্ড তৈরি করতে পারেন তাহালে আপনি সফল।

ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার কিভাবে শুরু করবে


ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার শুরু (start) করার জন্য আপনাকে নিচের ধাপগুলো অনুসারণ করতে হবে।

(১) নিজের লক্ষ (Goal) সঠিক ভাবে সেট করতে হবে। আপনি কতটুকু কাজ করতে চান, কতটুকু সময় ব্যায় করতে চান। আপনি কি চাকরি (job) করার পাশাপাশি এটা করতে চান। পার্ট-টাইম (part-time) হিসাবে কাজ করতে চান নাকি ফুল-টাইম (full-time) হিসাবে কাজ করতে চান। এই সব ব্যাপারে আপনাকে আগে ঠিক করে নিতে হবে। তাহালে আপনি লক্ষে সহজে এগিয়ে যেতে পারবেন।
(২) কোন বিষয়ে (niche) নিয়ে কাজ করবেন সেটা আপনাকে ঠিক করতে হবে। মানে আপনার কাজের বিষয় (Subject) ঠিক করতে হবে। আপনি যে কোনো একটি বিষয়ে কাজ করতে পারেন। তবে যে বিষয়ে আপনার একটু দক্ষতা (skills) রয়েছে সেই বিষয়ে আপনি কাজ করতে পারবেন। 

freelancing কাজের অনেক বিষয় রয়েছে। যেমন- Graphic design, logo design, website design, website make, content writing, coding, seo service, video cutting, video editing, content marketing ইত্যাদি।

(৩) আপনি কোন কোন freelancing সাইটে কাজ করবেন সেটা ঠিক করতে হবে। বর্তমানে freelancing কাজ করার জন্য অনেক গুলো ওয়েবসাইট রয়েছে। যেমন- 


আপনারা যে কোনো একটি ওয়েবসাইটে কাজ করতে পারেন। তবে নতুনদের জন্য Freelancer.com এবং Upwork.com অনেক ভালো।

এই সব ওয়েবসাইটে গিয়ে আপনি সর্বপ্রথমে অ্যাকাউন্ট (account) তৈরি করে নিজের প্রোফাইল (profile) সুন্দর করে সাজাবেন। আর আপনার কি কি কাজের উপর দক্ষতা রয়েছে সেগুলো সুন্দর করে লিখে দিবেন। এছাড়া আপনার কত বছরের কাজের দক্ষতা রয়েছে সেটাও উল্লোখ করবেন। 


ফ্রিল্যান্সিং করে কত টাকা আয় করা যাবে?


ফ্রিল্যান্সিং করে কত টাকা আয় করা যাবে সেটা সঠিক ভাবে বলা যায় না। তবে আপনি ভালো পরিমানে টাকা আয় করতে পারবেন। যাতে আপনার আর অন্য কিছু করার দরকার হবে না। বাংলাদেশে এমন অনেক ফ্রিল্যান্সার রয়েছে প্রতি মাসে লক্ষ টাকার বেশি টাকা আয় করছে। 

আবার অনেকে ইনকাম করছে ৫০ থেকে ৬০ হাজার টাকা প্রতিমাসে। বাংলাদের প্রতিবছর ১ মিলিয়ান মার্কিন ডলার আয় করে দেশে নিয়ে আনছে বাংলাদের ফ্রিল্যান্সাররা। কাজের উপর যার যত বেশি দক্ষতা থাকবে তারা ততো বেশি পরিমানে টাকা আয় করতে পারবে।

কোন ফ্রিল্যান্সিং কোর্স শিখবেন?

সত্তি বলতে ফ্রিল্যান্সিং কোর্স করার কোনো প্রয়োজন হয় বলে আমি মনে করি না। কারণ আপনার প্রথমে প্রয়োজন হবে কিছু সাধারণ জ্ঞান। যে কি ভাবে কাজ শুরু করবো?, কি বিষয়ে কাজ করবো?, কোন ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে কাজ খুঁজে পাবো? এই সমস্ত ব্যপার গুলো সর্বপ্রথম চলে আসে। 
তবে, আপনি ফ্রিল্যান্সিং বেশ কিছু কাজ করার জন্য কোর্স করতে পারেন। আর সেই কোর্স শেষ করার পরে আপনি ফ্রিল্যান্সিং কাজ শুরু করতে পারবেন পুরাপুরি ভাবে। যেমন-

গ্রাফিক্স ডিজাইন (Graphic Design)


বর্তমান সময়ে বিভিন্ন ব্যবসার জন্য লোগো (logo), ব্যানার, প্রয়োজন হয়। এই সব কাজ করার জন্য আপনি গ্রাফিক্স ডিজাইন (Graphic Design) এর কাজ শিখতে পারেন। বর্তমান সময়ে গ্রাফিক্স ডিজাইন এর চাহিদা ফ্রিল্যান্সিং মারকেটিংপ্লেসে খুব বেশি। এতে আপনি ভালো পরিমানে টাকা আয় করতে পারবেন। এটা ভালো করে শিখতে আপনি কোর্স করতে পারেন।

Website তৈরি


বর্তমানের সাথে তাল মিলাতে গিয়ে এখন প্রতিদিন তৈরি হচ্ছে নিত্যনতুন ওয়েবসাইট (website). যারা ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন তাদের কাজের কোনো শেষ নেই ফ্রিল্যান্সিং (freelancing) মারকেটিংপ্লেসে (marketplace)। আপনি চাইলে এই কাজ শিখতে পারেন। এতে আপনি প্রচুর টাকা আয় করতে পারবেন। ওয়েবসাইট তৈরি শিখতে আপনি কোর্স করতে পারেন।

Coding (Java / PHP / Css)


যারা website development এর কাজ করতে চান তারা coding এর কাজ শিখতে পারেন। এই কাজের জন্য coding language এ জানার প্রয়োজন হয়। website development দের কাজের চাহিদা প্রচুর। আর এখানে ভালো পরিমানে আয় করতে পারবেন। আপনি এটার জন্য কোর্স করতে পারেন।


Article Writing 


যাদের আর্টিকেল রাইটেং (Article Writing) এর দক্ষতা রয়েছে তারা ভালো ভাবে আর্টিকেল লেখার জন্য কোর্স করতে পারেন। আপনি বিভিন্ন ওয়েবসাইটে Article Writing এর কাজ পেয়ে যাবেন। 

Video Editing

অনেক কোম্পানি তাদের প্রচারের জন্য বিঙ্গাপন তৈরি করে। এই ভিডিও এডিটিং করার জন্য আপনি অনেক কাজ পাবেন মারকেটিংপ্লেসে। তার জন্য আপনি কোর্স করতে পারেন। যারা প্রফেশনাল ভাবে ভিডিও এডিটিং এর কাজ করে তারা প্রচুর টাকা আয় করে।

সর্বশেষঃ


ফ্রিল্যান্সিং কি? কিভাবে শুরু করবো? ফ্রিল্যান্সিং সম্পর্কে বিরস্তিত আপনাদের সাথে আলোচনা করছি। আমি আশাকরি, আপনারা বুঝতে পারছেন। এবার তো আপনারা অবশ্যই বুঝতে পারছেন যে এই মাধ্যমে ঘরে বসে অনলাইন কাজ করা অনেক বেশি লাভ জনক।

তার জন্য আপনাকে কাজের বিষয়ে দক্ষতা অর্জন করতে হবে। যাতে আপনি সকল কাজ সঠিক এবং সুন্দর ভাবে করতে পারেন। তাহালে আপনি সফলতার দিকে এগিয়ে যাবেন এবং সফল হবেন। ধন্যবাদ

9 comments:

  1. you are in reality a excellent webmaster. The website loading pace is incredible. It seems that you’re doing any distinctive trick. Also, The contents are masterpiece. you have performed a wonderful task on this subject! webflow designer

    ReplyDelete
  2. Sweet blog! I found it while searching on Yahoo News. Do you have any tips on how to get listed in Yahoo News? I’ve been trying for a while but I never seem to get there! Thanks webflow design agency

    ReplyDelete
  3. Good post. I learn something tougher on different blogs everyday. It'll at all times be stimulating to learn content from other writers and observe somewhat one thing from their store. I’d choose to use some with the content on my blog whether or not you don’t mind. Natually I’ll offer you a link in your internet blog. Thanks for sharing. ux design agency

    ReplyDelete
  4. The elegance of those blogging engines and CMS platforms may be the lack of limitations and ease of manipulation that permits builders to put into action prosperous subject material and ‘skin’ the site in this kind of a way that with really little effort a single would in no way observe what it truly is generating the website tick all without having limiting content and effectiveness. top web development companies

    ReplyDelete
  5. Got the exceptional platform affiliate marketing which I was seeking out for almost a decade and trust me I'm now not dissatisfied with a piece! splendid possibility here! 5 Stars!

    ReplyDelete
  6. This comment has been removed by a blog administrator.

    ReplyDelete
  7. I was pinning away for such type of blogs, thanks for posting this for us.
    website design new york

    ReplyDelete
  8. This is one of the most important blogs that I have seen, keep it up!
    UX design firms

    ReplyDelete
  9. In any case, on the off chance that you pick your notoriety over cash, at that point you will continue getting work from the customers until you need. Professional graphic design

    ReplyDelete