Blogger vs WordPress : ব্লগ তৈরির জন্য কোনটা ভালো এবং কেন? - ABC Media BD

Breaking

Monday, December 9, 2019

Blogger vs WordPress : ব্লগ তৈরির জন্য কোনটা ভালো এবং কেন?



আমরা যখন একটি ফ্রিতে ব্লগ (blog) তৈরি করা চিন্তা করি তখন আমারদের কাছে অবশ্যই ভিন্ন ভিন্ন blogging platfrom অপশন (option) থাকে। এই অপশন গুলো হচ্ছে- Blogger, WordPress, Wix, Tumblr ইত্যাদি। এছাড়া আরো অনেক অপশন (option) থাকে।
Blogger vs WordPress : ব্লগ তৈরির জন্য কোনটা ভালো এবং কেন?

আমাদের একটা কথা অবশ্যই জানা প্রয়োজন ব্লগিং (Blogging) এর ক্ষেএে ইন্টারনেটে যতগুলো ওয়েবসাইট রয়েছে তার ৩৫% ব্লগ অথবা ওয়েবসাইট ওয়ার্ডপ্রেস (WordPress) ব্যবহার করে তৈরি করা হয়েছে।

আর অন্যদিকে ওয়ার্ডপ্রেস (WordPress) ব্যবহার না করে ইন্টারনেটে যতগুলো ওয়েবসাইট রয়েছে তার মধ্য শতকরা ১% ওয়েবসাইট ব্লগার (Blogger) অথবা  Blogspot ব্যবহার করে তৈরি  করা হয়েছে।

বর্তমানে ইন্টারনেটে ওয়ার্ডপ্রেস (WordPress) এবং ব্লগার (Blogger) ব্লগ ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য দুইটায় খুব জনপ্রিয়। কিন্ত ব্লগের তুলোনায় ওয়ার্ডপ্রেস (WordPress) বেশি জনপ্রিয়। এই দুইটা platform ব্যবহার করা আপনারা খুব ভালো মানের আধুনিক ব্লগসাইট তৈরি করতে পারবেন।

ব্লগ কি? কি ভাবে ব্লগ তৈরি করবো (Blog Create)

কিন্ত ব্লগার এবং ওয়ার্ডপ্রেস এর মধ্যে অনেক পার্থক্য রয়েছে। আজ আমরা জানবো এই আর্টিকেলের মাধ্যমে এদের ক্ষমতা, লাভ এবং পার্থক্য। তাহালে চলুন এই বিষয়ে কথা জেনে আসি।

আসলে ব্লগার এবং ওয়ার্ডপ্রেস এই দুইটার মধ্য আলদা আলদা ক্ষমতা এবং ভাল ক্ষতির দিক রয়েছে। আমরা যদি এই বিষয়ে তর্ক-বিতর্ক করি তাহালে বিভ্রান্তি হয়ে যাবে আমাদের আর্টিকেলটি। এতে ভিজিটর্সরা ও বিভ্রান্তকরের মধ্যে পড়বে।

এটার মূল কারণ হচ্ছে অনেক অনেক মানুষরা অথবা ব্লগাররা Blogger platform দিয়ে ব্লগ তৈরি করেছে। আর তারা অনেক ভালো কিছু পেয়ে সফলতা পেয়েছে। তাদের কোনো রকমের প্রযুক্তিগত সমস্যা মুখে পড়তে হয়নি। আপনার আমার যে আর্টিকেলটি পড়ছেন এটাও কিন্ত Blogger platform দিয়ে তৈরি করা। আর আজ আমি সফলতা পেয়েছি।

আবার, অনেক অনেক মানুষরা অথবা ব্লগাররা ওয়ার্ডপ্রেস (WordPress) দিয়ে ব্লগওয়েবসাইট তৈরি করে ভালো ফলাফল পেয়েছে। তারাও কোনো প্রকারের প্রযুক্তিগত সমস্যায় না পড়ে সফলতা পেয়েছে।

কিন্ত, মানুষরা বর্তমানে Blogger platform এর চেয়ে WordPress platform ব্যবহার বেশি হচ্ছে। কারণ ওয়ার্ডপ্রেস (WordPress) ব্যবহারের জন্য তারা বাড়তি লাভ এবং ফিচারস (features) পাচ্ছেন।

তবে, ব্লগিং করার জন্য যদি এমন প্রশ্ন আপনাকে কেউ করে যে, ব্লগিং করার জন্য কোনটা ভাল Blogger নাকি WordPress? এই প্রশ্নের সঠিক উওর পেতে চাইলে আপনাকে সর্বপ্রথম দুইটার পার্থক্য সম্পর্কে জানতে হবে। এই দুইটার পার্থক্য জানার পর আপনার বুঝতে পারবেন কোনটা ব্যবহার করে ব্লগ (Blog) তৈরি করবেন।

কি ভাবে ব্লগ আর্টিকেল SEO করবেন? (Blog Article SEO Bangla Tutorial)

তাহালে, চলুন আমরা আর দেরি না করে জেনে নেই ব্লগ তৈরির জন্য কোন প্লাটফর্ম (Platform) ভালো হবে "ব্লগাররা না ওয়ার্ডপ্রেস"

ব্লগার (Blogger) না ওয়ার্ডপ্রেস (WordPress) : কোন ব্লগিং প্লাটফর্ম (platform) সেরা?


আজ আমি এই আর্টিকেলে আপনাদেরকে বুঝিয়ে বলবো কোন প্লাটফর্মটি সেরা। তারজন্য আপনারা আর্টিকেলটি মনোযোগ দিয়ে শেষ পর্যন্ত পড়বেন। তাহালে আপনারা বুঝতে পারবেন কোন প্লাটফর্ম (platform) সেরা।

একটি ভালো ব্লগ প্লাটফর্মে কি কি থাকতে হবে?

ব্লগার (Blogger) এবং ওয়ার্ডপ্রেস (WordPress) ব্লগের জন্য কোনটা ভালো এটা জানার আগে আমাদের জানতে একটি ভালো মানের ব্লগিং প্লাটফর্মের মধ্যে কি কি বিষয়ে বিশিষ্ট থাকা প্রয়োজনীয়।

  • সহজ ব্যবহারঃ আপনারা যখন একটি ব্লগিং প্লাটফর্মের কথা চিন্ত করবেন তখন সর্বপ্রথমে চিন্তা করে দেখতে হবে সেটা সহজ-সরল আছে কিনা। যেখানে খুব সহজে আর্টিকেল পাবলিশ করে ট্রফিক বা ভিজিটর্স নিয়ে আসা যায়।
  • নমনীয়তাঃ ব্লগ তৈরি করার জন্য আপনি যেকোনো একটি প্লাটফর্ম বেচে নিতে পারেন। কিন্ত বেচে নেয়ার আগের চিন্তা করতে হবে সেটা আধুনিক আছে কিনা। কারণ ব্লগিং এর জন্য আধুনিক প্লাটফর্ম খুব জরুরি। এতে আপনি resources এবং features tools পেয়ে যাবেন।
  • সৌন্দর্যঃ বর্তমানে প্রতিটা কাজে মানুষরা দেখে সৌন্দর্য আছে কিনা। কারণ সৌন্দর্যময় না হলে মানুষরা সেটা দেখে না। এজন ব্লগিং এর ক্ষেএে ও সৌন্দর্যের গুরুত্বপূর্ণ। আপনার ব্লগসাইট যদি সৌন্দর্যময় না তাহালে ভিজিটর্সরা কখনো আপনার ব্লগসাইট ভিজিট করবে না। তারজন্য প্লাটফর্ম সৌন্দর্যময় দেখে নির্বচন করতে হবে।
  •  নিরাপত্তাঃ বর্তমান সময়ে বিভিন্ন হ্যাকাররা অনলাইনে বিভিন্ন ভাইরাস দিয়ে ওয়েবসাইটকে হ্যাক (hack) করার চেষ্টা করছে। তারজন্য ব্লগ প্লাটফর্ম বেচে নেওয়ার আগে আপনাকে নিরাপত্তার দিকে বিষয়ে বিশেষ করে গুরুত্ব দিতে হবে

  • SEO : ব্লগওয়েবসাইটের জন্য seo খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আপনি যদি seo না করেন তাহালে আপনার ব্লগসাইট google এ রেংক করবে না। এজন্য আপনাকে এমন প্লাটফর্ম বেচে নিতে হবে যাতে খুব সহজে ব্লগসাইট seo করা যায়।

SEO কি? SEO কাকে বলে? SEO কত প্রকার ও কি কি? (SEO Bangla Tutorial)

এছাড়া আরো অনেক বিষয়ের উপর আপনাকে গুরুত্ব দিতে হবে। তাহালে চলুন এবারে আমরা জেনে নেই Blogger এবং WordPress কি?

Blogger কি?

ব্লগার হচ্ছে গুগলের একটি ফ্রি সার্ভিস। ২০০৩ সনে গুগল "pyra labs" কোম্পানি থেকে অর্জন করে নিয়েছে। Blogger হলো অনলাইনে "blog publishing tool" যা ব্যবহারের মাধ্যমে আপনারা একদম ফ্রিতে একটি ব্লগ ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন।

ব্লগ তৈরি জন্য আপনার কোনো টাকার প্রয়োজন হবে না। আপনি ফ্রিতে এই সার্ভিস ব্যবহার করতে পারবেন। এটা গুগলের নিজস্ব সার্ভিস বলে এতে ফ্রি হোস্টিং রয়েছে। আলাদা ভাবে কোনো প্রকারের হোস্টিং দরকার হবে না।

আর প্রতিটা ব্লগের সাথে একটি করে সাব-ডোমেন (sub-domain) দেওয়া হয়। তারজন্য আপনারা ডোমেন না কিনেও ব্লগ ব্যবহার করতে পারবেন।

তাহালে, আমি আশাকরি আপনারা অবশ্যই সুন্দর ভাবে বুঝতে পারছেন যে ব্লগ কি?

WordPress কি?

ওয়ার্ডপ্রেস (WordPress) হচ্ছে একটি খুব সহজ-সরল এবং অত্যন্ত শক্তিশালী অনলাইন টুল। যেটা ব্যবহার করে আপনারা সহজে একটি ব্লগ অথবা ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন। আপনারা হয়তো জানেন ইন্টারনেটে যতগুলো ওয়েবসাইট রয়েছে তার মধ্য শতকরা ৩৫% ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে তৈরি করা হয়েছে।

ইন্টারনেটে ব্যবহার করা শতকরা ৫ টা ওয়েবসাইটের মধ্যে ১টি WordPress ব্যবহার করে তৈরি করা হয়। ওয়ার্ডপ্রেস হলো এমন একটি  "opne source CMS software" যার মাধ্যমে আপনি একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন। WordPress ব্যবহার করার জন্য কোনো প্রকার "technical knowledge" অথবা coding knowledge দরকার নেই।

তাহালে, আপনারা অবশ্যই বুঝতে পারছেন যে ওয়ার্ডপ্রেস (WordPress) কি?

ব্লগার এবং ওয়ার্ডপ্রেস এর মধ্যে পার্থক্য কি কি? (কোনটা ভালো বেশি)

(১) Setting up a new blog

একটি ব্লগ তৈরি করার জন্য আপনার কোনো প্রকার জ্ঞান প্রয়োজন হবে না। কারণ খুব সহজে আপনি একটি ব্লগওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন।
ব্লগ www.blogger.com ওয়েবসাইটে গিয়ে "create your blog" অপশনে ক্লিক করে একটি ব্লগসাইট তৈরি করতে পারবেন। তারপর "Title, description এবং theme বেচে নিয়ে ব্লগসাইট তৈরি করতে পারবেন।
কিন্ত,
একটি ওয়ার্ডপ্রেস (WordPress) ওয়েবসাইট তৈরি করতে হলে আপনাকে অবশ্যই ওয়ার্ডপ্রেস সম্পর্কে জ্ঞান থাকতে হবে। ওয়ার্ডপ্রেস হলো CMS সফটওয়্যার। এই সফটওয়্যার ব্যবহার করার জন্য আপনাকে ওয়েব হোস্টিং (web hosting) কিনতে হবে।

(২) মালিকানা অধিকার

ব্লগ গুগলের একটি ফ্রি সার্ভিস বলে এটার মালিকানা সম্পর্ন আপনার হাতে থাকবে না। কারণ Blogger গুগলের নিজস্ব ওয়েব হোস্টিং থাকে যার জন্য আপনাকে আর ওয়েব হোস্টিং কিনতে হয় না। যার জন্য এটার নিয়ন্ত্রণ সম্পর্ন আপনার হাতে থাকে না। গুগল চাইলে যে কোনো বিষয় আপনার ওয়েবসাইট থেকে আপনার অনুমতি না নিয়ে ডিলেট করে দিতে পারে।
কিন্ত,
যারা ওয়ার্ডপ্রেস (WordPress) ব্যবহার ব্লগ তৈরি করেছে তাদের মালিকানা সম্পর্ন নিজের হাতে। কারণ ওয়ার্ডপ্রেস এ হোস্টিং সম্পর্ন নিজের কিনা যার জন্য কেউ চাইলে আপনার ব্লগ থেকে কোনো কিছু ডিলেট করতে পারতে না। কেউ আপনার অনুমিত ছাড়া ব্লগে প্রবেশ করতে পারবে না। এটার নিয়ন্তণ সম্পর্ন আপনি করবেন।

(৩) Design

Blogger খুব সহজে তৈরি করা যায় কিন্ত এটার design ক্ষমতা অনেক কম। আপনি যখন নতুন ব্লগার হিসাবে কাজ করবেন তখন আপনার ভালো লাগবে। কিন্ত আপনি কখনো নিজের মনের মতো করে customization option পাবেন না। এখানে অনেক প্লাগিন কম থাকে। আর সে সব প্লাগিন বেশি থাকে সেগুলো তেমন কাজে লাগে না।
কিন্ত,
ব্লগের তুলনায় WordPress এ প্রচুর পরিমানে প্লাগিন থাকে। যার কারনে খুব সহজে কাজ করতে পারবেন। ওয়ার্ডপ্রেসে অনেক গুলো design থাকে  এবং এগুলো নিজের মতো করে customization করা যায়। এখানে আপনি ৭০০০ এর বেশি theme পাবেন।

(৪) নিরাপত্তা

Blogger গুগলের নিজস্ব সার্ভিস বলে গুগল একে অনেক বেশি পরিমানে নিরাপত্তা দিয়ে থাকে। ব্লগ নিয়ে আপনাকে নিরাপত্তার বিষয়ে মোটের মাথা ঘামাতে হবে না। ব্লগের backup তৈরি করে server  resourecs manage দ্বারা নিরাপত্তা দিয়ে থাকে।
কিন্ত,
এমনেতে ওয়ার্ডপ্রেস অনেকটা নিরাপদ। কিন্ত ব্লগের মতো backup, security, login protection গুলো নিয়ে আপনাকে মাথা ঘামাতে হবে। তবে চিন্তার কোনো কারণ নেই free Wordpress plugin ব্যবহার আপনারা চিন্তা মুক্ত হতে পারেন।

(৫) ব্লগ তৈরির খরচ

Blogger দিয়ে ব্লগ তৈরি করলে আপনার কোনো প্রকার টাকা পয়সার প্রয়োজন হবে না। কারণ এটা গুগলের একটি সম্পর্ন ফ্রি সার্ভিস। এতে আলদা করে কোনো ডোমেন হোস্টিং কিনার দরকার হয় না। blogger দিয়ে ব্লগ তৈরি করলে আপনাকে ফ্রিতে ডোমেন এবং হোস্টিং দেওয়া হয়।
কিন্ত,
WordPress দিয়ে ব্লগ তৈরি করলে আপনাকে খুব বেশি টাকার প্রয়োজন হবে না। ৩০০ থেকে ৯০০ টাকার মধ্যে আপনি একটি ব্লগওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন। ওয়ার্ডপ্রেসের নিজস্ব ডোমেন এবং হোস্টিং নেই। যার কারণে এই ডোমেন এবং হোস্টিং কিনতে টাকার প্রয়োজন হয়।

(৬) SEO (search engine optimization)

 ব্লগের জন্য search engine optimization খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ব্লগ যদি আপনি ভালো ভাবে seo না করতে পারেন তাহালে কখনো google আপনার সাইট রেংক করবে না। ওয়ার্ডপ্রেস এর তুলনায় ব্লগার seo দিক থেকে অনেক পিছিয়ে রয়েছে। কারণ ব্লগারে তেমন ভালো seo করার অপশন নেই।
কিন্ত,
WordPress এ ভালো কোয়ালিটির টুল (tool) থাকার কারণে ভালো ভাবে SEO (search engine optimization) করা যায়। ব্লগার তুলনায় ওয়ার্ডপ্রেসে ভালো ভাবে seo করা যায়। এখানে আপনারা ফ্রিতে অনেক প্রকারের SEO Plugin পাবেন। যা দিয়ে আপনারা ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইটকে seo friendly করে নিতে পারবেন। তাছাড়া WordPress On Page SEO করা নিয়ে আপনাকে কোনো প্রকার চিন্তা করতে হবে না।

(৭) ভবিষ্যৎ

ব্লগার এবং ওয়ার্ডপ্রেস দুইটার ভবিষ্যৎ ভালো। কিন্ত ব্লগার চাহিদা দিনে দিনে কমে যাচ্ছে আর ওয়ার্ডপ্রেস এর চাহিদা দিনে দিনে বৃদ্ধি পাচ্ছে। বর্তমানে মানুষরা ব্লগকে তাদের ক্যারিয়ার হিসাবে নিচ্ছে। তবে ওয়ার্ডপ্রেস  professional platform হিসাবে মানুষের কাছে প্রমাণিত হয়েছে। তার জন্য ব্লগের তুলনায় ওয়ার্ডপ্রেসের ভবিষ্যৎ অনেক অনেক উউজ্জ্বলিত

সর্বশেষ

Blogger এবং WordPress দুইটায় আপনি ব্যবহার করতে পারেন। যারা simple blog তৈরি করতে চান তারা blogger ব্যবহার করে তৈরি করতে পারেন। আর যারা ব্লগকে নিজের ক্যারিয়ার হিসাবে নিতে চান তারা WordPress ব্যবহার করে ব্লগ তৈরি করবেন।

কি ভাবে ব্লগে সহজে গুগল এডসেন্স পাওয়া যায় (Blog Easy Google Adsense)

আমার আর্টিকেলটি সম্পর্ন পড়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। কোনো বিষয়ে বুুঝতে সমস্যা হলে নিচে কমেন্ট করবেন। ইনশাল্লাহ আমি উওর দিবো।

No comments:

Post a Comment