সফল ইউটিউবার কি ভাবে হবো? (Successful Youtuber হতে চাই) - ABC Media BD

Breaking

Monday, November 25, 2019

সফল ইউটিউবার কি ভাবে হবো? (Successful Youtuber হতে চাই)

বর্তমানে YouTube এমন একটি মাধ্যম হয়ে দাড়িয়েছে যার মাধ্যমে ঘরে বসে লক্ষ লক্ষ মানুষ আনলাইনে আয় করছে। তাছাড়া নিজের বা বিভিন্ন কোম্পানির পন্য ভিডিও এর মাধ্যমে মানুষের মাঝে খুব সহজে প্রচার বা মারকেটিং করছে। বর্তমানে ইউটিউব থেকে আয় করাটা মানুষের পেশা হয়ে দাড়িয়ে গেছে। তার জন্য কি ভাবে একজন সফল ইউটিউবার হবো অথবা সফল ইউটিউবার হবার উপয় কি কি সেটা আমাদের জানতে হবে।
সফল ইউটিউবার কি ভাবে হবো (Successful Youtuber হতে চাই)
সফল ইউটিউবার কি ভাবে হবো (Successful Youtuber হতে চাই)

একজন সফল ইউটিউবার হচ্ছেন তারা যাদের YouTube Channel লক্ষ লক্ষ Subscriber আছে। তাদের চ্যালেনে ভিডিও আপলোড করলে লক্ষ লক্ষ ভিউস (Views) হয়। আর তারা নিজের ইউটিউব চ্যালেন থেকে প্রতিমাসে এতো পরিমানে টাকা ইনকাম করছে যে, তাদের অন্য কিছু করার দরকার হচ্ছে না।

এছাড়া এমন আরো অনেক ইউটিউবার রয়েছে যারা তাদের ইউটিউব চ্যালেনকে বিসনেস (Business) হিসাবে ব্যবহার করছে। আর তারা হাজার হাজার ডলার (Dollar) ইনকাম করছে।

আপনি যদি একজন সফল ইউটিউবার (Successful YouTuber) হতে চান তাহালে তাহালে আপনি যে কোনো একটি বিষয়ে টার্গেট করে কাজ করতে হবে। সেটা কিন্ত আপনার নিজের উপর নির্ভর করবে। হতে পারে আপনার জন্য YouTube এ সফলতার অন্য কোনো পরিকল্পনা থাকতে পারে।

আজ কাল একজন সফল ইউটিউবার হবা মানে তাদের YouTube Channel এ লক্ষ লক্ষ Subscriber আর সেই চ্যালেনে ভিডিও আপলোড দিলে হাজার হাজার ভিউস হওয়াকে বুঝায়। এক বার যদি একটা ইউটিউব চ্যালেন ভালো ভাবে দাড়িয়ে যেতে পারে। তাহালে সেই চ্যালেন থেকে প্রতিমাসে কত টাকা ইনকাম করে দিতে পারে সেটা কেবল একজন সফল ইউটিউবার ছাড়া আর অন্য কেউ বলতে পারে না।

ডোমেইন অথরিটি (Domain Authority) কি? এবং কিভাবে চেক করবেন

আপনার ইউটিউব চ্যালেন যদি একবার সফলতার রাস্তায় চলে আসে তাহালে আসে তাহালে আপনি লক্ষ লক্ষ টাকার মালিক হয়ে যাবেন। আপনাকে টাকার পাহাড় বানিয়ে দিতে পারে একটি সফল চ্যালেন। এই ভাবে অনেক মানুষকে বানিয়ে দিয়েছে।


সফল ইউটিউবার হতে কি কি দরকার


বর্তমানে বেশি ভাগ মানুষরা একটি ইউটিউব চ্যালেন তৈরি করছে এবং তাতে ভিডিও আবলোড দিচ্ছি টাকা আয়ের উদ্দেশ্য নিয়ে। আমার মনে হয় আপনিও সেই একই উদ্দেশ্য নিয়ে ইউটিউব চ্যালেন তৈরি করছেন। কি আমি সঠিক বলছি না। হা সঠিক বলছি।

কিন্ত কয়েক মাস কাজ করার পরে আপনার চ্যালেনের ভিডিও গুলোতে ভিউস (Views) এবং Subscriber হচ্ছে না বলে আপনি একে বারে নিরাশ হয়ে পড়েছেন। কি ঠিক তো? আবার অনেকে হয়তো YouTubeing করা বন্ধ করে দিয়েছেন। এটা মনে করা শুরু করেছেন যে আসলে ইউটিউব থেকে টাকা আয় করা আমার দ্বারা সম্ভব না।

মনে রাখবেন এক জন সফল ইউটিউবার হবা সহজ কাজ নয়। যত সহজ আমরা ভাবি। কিন্ত একটা কথা মনে রাখবেন এক জন সফল ইউটিউবার হবা অসম্ভব নয়। আপনি যদি কিছু নিয়ম মেনে চলতে পারেন তাহালে আপনার সফলতা কেউ ধরে রাখতে পারবে না।

আপনার YouTube Channel অবশ্যই সফলতার দ্বারে পৌছাবে। তার জন্য সর্বপ্রথম আপনার প্রয়োজন হবে-


  • নিজের উপর বিশ্বাস
  • কাজের উপর অস্তা
  • একাগ্রতা
  • কাজের প্রতি মন থাকা
  • সফল হবার ইচ্ছা শক্তি


যদি উপরের এই গুলো আপনার মধ্যে থাকে তাহালে অবশ্যই ১০০% আপনি এক জন সফল ইউটিউবার হতে পারবেন। তাছাড়া Successful YouTube Channel বানাতে নিচের বিষয় গুলোর প্রতি ধ্যান-ধারনা দিতে হবে।

সফল ইউটিউবার হওয়ার উপয় কি? ( Become a Successful YouTuber)


আপনি যদি এক জন সফল ভাবে ইউটিউবার হতে চান তাহালে কাজের প্রতি মন দেওয়ার পাশাপাশি আরো অনেক কিছু করতে হবে। নিচের নিয়ম গুলো মেনে চললে আপনি অবশ্যই সফল ইউটিউবার হতে পারবেন-

(১) কাজের এবং জনপ্রিয় বিষয়ে ভিডিও তৈরি করুন


আপনারা সব সময় জনপ্রিয় এবং কাজের বিষয়ে ভিডিও তৈরি করান চেষ্টা করবেন। দেখবেন এক এক সময় এক এক বিষয়ে মানুষের মুখে মুখে চলে আসে। তখন আপনি প্রথমে সেই বিষয়ের উপর ভিডিও তৈরি করবেন।

আর এমন কোনো বিষয়ের উপর ভিডিও তৈরি করবেন না যেটা মানুষ দেখতে চাই না। মনে রাখবেন অপ্রয়োজনীয় কোনো ভিডিও তৈরি করবেন না। এতে ভিজিটর্সরা বিরক্ত হয়ে যায়। মানুষের চাহিদা, রুচি বুঝে তার পর ভিডিও তৈরি করবেন।

আপনি যে বিষয়ে ভিডিও তৈরি করবেন সেই বিষয়ে আগে সার্চ দিয়ে দেখবেন যে কিসের উরপ বেশি ভিজিটর্সদের বেশি চাহিদা সেই বিষয়ে ভিডিও তৈরি করলে বেশি বেশি ভিউস পাবেন। তাছাড়া জনপ্রিয় ভিডিও বানানোর আগে  কীওয়ার্ড রিসার্চ করবেন। এতে আপনি বুঝতে পারবেন কোন বিষয়ে কতবার গুগলে সার্চ হচ্ছে। এবং কি কি বিষয়ে মানুষের রুচি রয়েছে।

(২) Interesting ভিডিও তৈরি করুন


আপনি সব সময় Interesting ভিডিও তৈরি করার চেষ্টা করবেন। যেন ভিডিও গুলো দেখে মানুষের ভালো লাগে বা দেখতে রুচি বোধ হয়। যে বিষয়ে ভিডিও তৈরি করবেন সেই সব কিছু বিরস্তিত ভিডিও নিয়ে তৈরি করবেন। ভিজিটর্সরা যেন A to Z বুঝতে পারে ভিডিও দেখে।

এর ফলে ভিজিটর্সরা কিছু শিখতে পারবে এবং Interest নিয়ে ভিডিও দেখব, সাথে সাথে পরিবর্তী গুলোর জন্য অপেক্ষা করবে। আপনি যখন সমস্তরকম Information এবং Details নিয়ে ভিডিও তৈরি করবেন তখন মানুষরা ভালো জানবে।

কি ভাবে উইটিউব চ্যালেন তৈরি করবেন

আপনি ইউটিউবে যে কোনো একটি বিষয়ে সার্চ দিয়ে দেখুন প্রথমে যে ১০ ভিডিও দেখাবে সেই ভিডিও গুলো সমস্তরকম Information Details নিয়ে তৈরি করা। যার ফলে ইউটিউব তাদের ভিডিও গুলোকে টপে দেখাচ্ছে। এই ধরনের ভিডিও গুলো ইউটিউবের সার্চ এ একদম প্রথমে দেখানো হয়।


(৩) YouTube SEO এর ব্যাপারে ধ্যান দিতে হবে


আপনি যদি YouTube Search engine এর দ্বারা ভিউস (Views) পেতে চান তাহালে অবশ্যই ভিডিও গুলোকে YouTube SEO করতে হবে। YouTube SEO করলে গুগল সার্চ ইঞ্জিন থেকে প্রচুরসংখ্যক ফ্রি ভিজিটর্স পাবেন। এতে আপনার চ্যালেন সফলতার দিকে এগিয়ে যাবে।

ভিডিও গুলো আপনার ইউটিউব চ্যালেন আবলোড করার সময় সঠিক ভাবে SEO (Search engine optimization) করে নিবেন। এই নিয়ে আমি বিরস্তিত (Details) একটি আর্টিকেল লিখেছি আমার এই ব্লগের মধ্যে। আপনারা অবশ্যই পড়ে নিবেন।


(৪)  High Quality ভিডিও তৈরি করুন


বর্তমানে 4G চলে এসেছে। এখন ভিজিটর্সরা সব HD Quality ভিডিও দেখতে পছন্দ করে। আর Low Quality ভিডিও ভিজিটর্সরা দেখতে পছন্দ করে না। আপনি যত ভালো ভিডিও তৈরি করেন না কেন ভিডিও যদি ক্লিয়ার HD Quality না হয় তাহালে ভিজিটর্সরা ভিডিও গুলো দেখবে না।

(৫) চ্যানেলের বিষয়ে (Niche) রাখুন


আপনি যদি এক জন সফল ইউটিউবার হতে চান তাহালে অবশ্যই নিজের চ্যালেনের বিষয়ে মনে রেখে ভিডিও তৈরি করতে হবে। আপনার চ্যালেনটা যে টফিক অথবা Niche নিয়ে তৈরি করছেন সেই বিষয়ের সাথে মিল রেখে ভিডিও তৈরি করবেন।

আমি ছোটে একটা উদাহরণ দিয়ে আপনাদের পরিস্কার ভাবে বুঝাচ্ছি বিষয়টা। মনে করেন আপনার ইউটিউব চ্যালেনটা ফ্যানি ভিডিও (Fanny Video) এর উপর তৈরি করেছেন। তাহালে আপনি যখন ভিডিও তৈরি করবেন সেটা যেন ফ্যানি ভিডিও এর সাথে যুক্ত থাকে। অন্য কোনো টফিক যুক্ত করবেন না। এতে আপনার চ্যালেন ক্ষতির মুখে পড়বে।

এতে Subscribera চ্যালেন Subscribe করবে ঔ একই কোয়ালিটির ভিডিও দেখার জন্য। এতে আপনি Subscribe সহজে পেয়ে যাবেন।

আর যদি আপনি এইটা ইউটিউব চ্যালেনে সব ধরনের ভিডিও আবলোড করেন তাহালে ভিজিটর্সরা বুঝতে পারে না যে আসলে তারা কি টফিকের জন্য চ্যালেনটা Subscribe করবে।

ব্লগিং এ কীওয়ার্ড রিসার্চ (Keyword research) কেন জরুরি?

তার জন্য অবশ্যই মনে রাখবেন এক জন সফল ইউটিউব চ্যালেন তৈরি করতে চাইলে নিজের চ্যালেনের টফিক, বিষয় বা Niche এর কথা মনে রেখে আপনাকে ভিডিও বানাতে হবে এবং আবলোড করতে হবে।

(৬) নিয়মিত ভিডিও আবলোড করতে হবে


যারা নতুন ইউটিউব চ্যালেন কাজ করছে তারা এই ভুলটা খুবই বেশি পরিমানে করে থাকে। তারা নিয়মিত চ্যালেনে ভিডিও আবলোড করে না। কিছু কিছু ইউটিউবার তাদের চ্যালেনে ভিউস হচ্ছে না বলে ভিডিও আবলোড করা ছেড়ে দেয়। আবার অনেক হতাশ হয়ে চ্যালেন বন্ধ করে দেয়।

এটা নতুন ইউটিউবারদের জন্য বড় ভুল। আসলে YouTube বিশ্বাস করতে কিছুটা সময় নেই। যে তারা আসলে YouTubeing করবে কি না। আর মনে রাখবেন কোনো কিছু এক দিনে সম্ভব না।

আপনি এসব বিষয় ভুলে গিয়ে প্রতি সপ্তাহে ২ থেকে ৩ টা ভিডিও আবলোড করবেন। আপনার ভিডিও কোয়ালিটি যদি ভালো হয় তাহালে অবশ্যই YouTube আপনাকে সফল ইউটিউবার হতে সাহায্য করবে।

সর্বশেষঃ


আমার এই আর্টিকেলটি সম্পর্ন পড়ার পড়ে আপনার কি ভাবে এক জন সফল ইউটিউবার হবেন সেটা অবশ্যই জানতে পারছেন। উপরের নিয়মে কাজ করলে আপনার সফলতা কেউ ধরে রাখতে পারবে না।

আমার আর্টিকেলটি সম্পর্ন পড়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। কোনো বিষয়ে বুুঝতে সমস্যা হলে নিচে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন। ইনশাল্লাহ আমি উওর দিবো। ধন্যবাদ

2 comments: