কি ভাবে গুগল এডসেন্স একাউন্ট খুলবেন - ABC Media BD

Breaking

Wednesday, October 30, 2019

কি ভাবে গুগল এডসেন্স একাউন্ট খুলবেন

কি ভাবে গুগল এডসেন্স একাউন্ট খুলবেন
Add cকি ভাবে গুগল এডসেন্স একাউন্ট খুলবেন


বর্তমানে বিশ্বের সব চেয়ে বড় এড্ড কোম্পানির নাম হচ্চে গুগল এডসেন্স। প্রতিটা Youtube channel এবং ওয়েব সাইটের মালিক গুগল এডসেন্স পেতে আগ্রহী প্রকাশ করে। যদি ও বর্তমানে গুগল এডসেন্স পাওয়া একটু কষ্টকর হলে ও সঠিক নিয়মে Youtube channel এবং ওয়েব সাইট ব্যবহার করলে খুব সহজে গুগল এডসেন্স পাওয়া যাবে। বর্তমানে গুগল এডসেন্স একাউন্ট পাওয়া আর সোনার হরিণ পাওয়া একই কথা।

গুগল এডসেন্স একাউন্ট মূলত পার্টানাশিপ ভাবে দুই ভাগে ভাগ করা হয়েছে-


(১) হোস্টেড একাউন্ট
(২) নন হোস্টেড একাউন্ট


(১) হোস্টেড একাউন্ট কাকে বলেঃ

YouTube থেকে প্রাপ্ত এডসেন্স একাউন্টকে বলা হয় হোস্টেড একাউন্ট। সহজ ভাবে বলতে গেলে হোস্টেড একাউন্ট Youtube এর সাথে সংযুক্ত থাকে এবং এর নিদিষ্ট একটি লভ্যাংশ Youtube পেয়ে থাকে।

(২) নন হোস্টেড একাউন্টঃ

ওয়েব সাইট থেকে প্রাপ্ত এডসেন্স একাউন্টকে বলা হয় নন হোস্টেড একাউন্ট। এই নন হোস্টেড একাউন্ট এর লভ্যাংশ কাউকে ভাগ দিতে হয় না। এই একাউন্ট নিজে তত্বাবধায়নে পরিচালিত করা হয়।


গুগল এডসেন্স একাউন্ট কি ভাবে খুলবেনঃ


আপনি গুগল এডসেন্স এ আবেদন করার পরে সব কিছু সঠিক থাকলে ২৪ ঘন্টার মধ্য আপনার এপরুভ করে নিবে। তার পরে Google Adsense এ Sing Up করতে হবে।

গুগল এডসেন্স একাউন্ট খুলা এবং গুগল এডসেন্স একাউন্টের জন্য আবেদন করা একই কথা। গুগল এডসেন্স একাউন্ট এর জন্য আবেদন করা খুবই সহজ। প্রথমে আপনাকে Google Adsense এর হোম পেজে যেতে হবে। হোম পেজে যাবার পর স্কিনে দেখতে পাবেন Sing Up নামে একটি বাটুন। তার পর Sing Up বাটুনে ক্লিক করবেন।

মোবাইল দিয়ে টাকা আয়

Sing Up বাটুনে ক্লিক করার পরে আপনাকে Gmail Account এ Lon In করতে বলা হবে। আপনার Gmail Account ঔ খানে Log In করবেন। তার পরে আপনাকে Adsense এর একটি নতুন পেজে নিয়ে যাবে। সেখানে আপনার ওয়েব সাইট দিতে বলা হবে এবং Continue বাটুনে ক্লিক করার পরে আপনার সামনে একটি ব্যাক্তিগত From দেখানো হবে। সেখানে সঠিক তথ্যাদি দিতে হবে। সকল তথ্যদি দেয়ার পরে Submit informetion বাটুনে ক্লিক করুন। ২৪ ঘন্টার মধ্যে আপনার Gmail Account এ এপরুভ  ইমেল চলে আসবে।

সর্বদা মনে রাখবেন আপনার নাম, ব্যাংক একাউন্ট নংবার এবং আপনার ঠিকানা সঠিক ভাবে দিবেন। আপনার একাউন্টে যখন ১০$ (ডলার) হয়ে যাবে তখন গুগল এডসেন্স থেকে পিন ভেরিভ্যাশন এর জন্য একটি চিঠি পাঠানো হবে আপনার ঠিকানায়। আপনি যদি ভুল নাম বা ভুল ঠিকানা দেন তাহালে কিন্ত আপনি গুগল এডসেন্স এর চিঠি হাতে পাবেন না।

গুগল এডসেন্স পাওয়ার সহজ শর্তাবলীঃ


আমপনি যদি ওয়েব সাইটে গুগল এডসেন্স একাউন্ট পেতে চান। তাহালে আপনাকে কিছু সাধারণ কিছু নিয়মবিধি জানতে হবে এবং সেই অনুসারে কাজ করতে হবে। যেমন-

(১) আপনার ওয়েব সাইটে সর্বদা ইউনিক আর্টিকেল থাকতে হবে। ইউনিক আর্টিকেল বলতে  আপনার নিজের লেখা আর্টিকেল। এক কথায় কপি আর্টিকেল দেয়া যাবে না।

(১)আপনার ওয়েব সাইটে ৫০ টির বেশি আর্টিকেল থাকতে হবে। এবং সব গুলো ইউনিক হতে হবে। গুগল এডসেন্স কখনো কপি রাইট আর্টিকেল এপরুভ করে না।

(৩) ভালো মানে একটি ডোমেন কিনতে হবে যেমন-. com/.net/.org/.info/.bd ইত্যাদি।

(৪) আপনার ডোমেনে বয়স ১ মাসের বেশি হতে হবে।

(৫) আপনার ওয়েব সাইটে কিছু পেজ থাকতে হবে যেমন- About Us, Contact Us, Terms & Condetion, Piyvacy & Policy ইত্যাদি।

(৬) কারেও ব্যাক্তিগত জীবন নিয়ে আর্টিকেল ওয়েব সাইটে লেখা যাবে না।

(৭) আপনার আর্টিকেল গুলো সর্বদা ৫০০ থেকে ৭০০ ওর্য়াডের বেশি হতে হবে। আর ১০ টার বেশি আর্টিকেল ১০০০ থেকে ১৫০০ ওর্য়াডের বেশি হলে গুগল এডসেন্স খুব সহজে এপরুভ করে নেই।

উপরের নিয়ম মেনে আপনি যদি গুগল এডসেন্স এর জন্য আবেদন করেন তাহালে খুব সহজে এপরুভ পেয়ে যাবেন।
কি ভাবে ওয়েব ব্লগ সাইটে খুব সহজে গুগল এডসেন্স পাবেন এই আর্টিকেলটি পড়তে নিচের লিংকে ক্লিক করুন।

ব্লগ সাইটে এডসেন্স যোগ করুন


YouTube Channel এ গুগল এডসেন্স পাওয়ার সহজ শর্তাবলীঃ

আপনারা সবাই জানেন Google এর একটি ফ্রি সার্ভিস হচ্ছে Youtube. Youtube একটি ফ্রি ওয়েব সাইট যেখানে আপনারা ফ্রি প্রচুর প্রচুর ভিডিও দেখতে পারবেন। আপনি খুব সহজে Youtube Channel একাউন্ট খুলে ভিডিও Upload করে টাকা আয় করতে পারবেন। কি ভাবে খুব সহজে YouTube Channel খুলবেন সেই আর্টিকেলটি পড়তে নিচের লিংকে ক্লিক করুন।
YouTube Account তৈরি করুন


YouTube এ গুগল এডসেন্স পাওয়া সহজ শর্তাবলীঃ

YouTube Channel এ খুব সহজে গুগল এডসেন্স পাওয়া যায়। শুধু মাএ নিদিষ্ট কিছু নিয়ম মেনে চলতে হবে।যেমন-

(১)  আপনার Youtube Channel এ কোনে প্রকার ভিডিও, সাউন্ড কপি করে নিজে চ্যালেন দেয়া যাবে না। সাউন্ডের জন্য Youtube তাদের ওয়েব সাইটে ফ্রিতে অনেক গুলো সাউন্ড দিয়েছে। সেগুলো ব্যবহার করলে কোনো সমস্যা হবে না।

(২) আপনার চ্যালেনে ১ বছরের মধ্যে ১০০০ সাবক্রাইব এবং ৪ হাজার ঘন্টা ওয়াচ টাইম হতে হবে।

(৩) ভালো মানের ভিডিও Upload করতে হবে। ভিডিও এর মান যেন ভাল হয়।

(৪) ভিডিও লিংক বেশি শেয়ার করা যাবে না। এতে আপনার চ্যালেন বন্ধ হয়ে যেতে পাবে।

(৫) কারো থাম্বল ও কপি করা যাবে না।

উপরের সকল বিষয় মেনে আপনি যদি Youtube channel ব্যবহার করতে পারেন তাহালে খুব সহজে গুগল এডসেন্স পেয়ে যাবেন।


গুগল এডসেন্স একাউন্ট ব্যবহার করার নিয়মঃ


গুগল এডসেন্স একাউন্ট পাওয়া যেমন কষ্টকর এটা রক্ষা করাও তেমন কষ্টসাধ্য একটি বিষয়। আপনি গুগল এডসেন্স পায়ছেন তার মানে আপনার কাজ শেষ নয়। আপনাকে সেটাকে সঠিক নিয়মে রক্ষা করতে হবে। যে ভাবে আপনি খুব সহজে গুগল এডসেন্স একাউন্ট পরিচালনা করবেন-

(১) কখনো নিজের সাইটে যে সকল এড্ড গুলো দেখাবে সেই এড্ড গুলোতে ক্লিক করবেন না।

(২) আপনার সাইটের লিংক কখনো কাউকে দিবেন না। আপনি কাউকে লিংক দিবেন আর সে আপনার সাইটে গিয়ে এড্ড গুলোতে ক্লিক করবে। এটা গুগল বুঝতে পারে যে আপনি কোথায় লিংক দিচ্ছেন কি না।

(৩) আপনি যখন গুগল এডসেন্স একাউন্ট পেয়ে যাবেন তখন আপনি অন্য কোনো এড্ড এর সাইট আপনার ওয়েব সাইটের মধ্যে নিবেন না।

(৪) একই ডিভাইস/ পিসি থেকে কখনো দুইটা গুগল এডসেন্স একাউন্ট খুলবেন না। এমন কি দুইটা এডসেন্স একই পিসিতে Log in করবেন না।

(৫) আপনার গুগল এডসেন্স একাউন্ট কখনো অন্যের পিসি বা ডিভাইস এ Lon in করবেন না। আপনি যদি বার বার আইপি পরিবর্তন করেন তাহালে আপনার গুগল একাউন্ট ব্যান হয়ে যাওয়ার ১০০% সম্ভবনা থাকে।

উপরের সব কিছু সঠিক ভাবে মেনে গুগল এডসেন্স একাউন্ট সহজ ভাবে পরিচালনা করা সম্ভব।

আমি আশা করি, আপনাদের সঠিক ভাবে বুঝাতে পারছি। আপনি এখন নিজে নিজে একটি গুগল এডসেন্স একাউন্ট খুলতে পারবেন। আর যে সকল বিষয় গুলো উপরে দেওয়া হয়েছে সেই বিষয় গুলো মানলে খুব সহজে গুগল এডসেন্স একাউন্ট পরিচালনা করতে সক্ষম হবেন।

তাছাড়া আপনি যদি পপ আপ এড দিতে চান। তাহালে পপ আপ এড এখনো গুগলে দেওয়া হয় নি। গুগল পপ আপ এড দিবেন কিনা সে বিষয়ে কিছু বলে নাই।

আর আপনি যদি পপ আপ এড নিতে চান তাহালে PropellerAds নেটোয়ার্কে Sing Up করতে পারেন। গুগল এডসেন্স এর মতো PropellerAds মিডিয়া একটি এড ওয়েব সাইট। যেখানে বিভিন্ন কোম্পানির এড দেখানো হয়। PropellerAds মিডিয়াতে ব্যানার এড ও নেওয়া যাবে আপনার ওয়েব সাইটের জন্য কিন্ত তার জন্য আপনার ওয়েব সাইটে প্রতি মাসে ৮ হাজার ট্রাফিক আসতে হবে। পপ আপ এডের মাধ্যমে প্রচুর পরিমানে আয় করা সম্ভব। আপনি পপ আপ এড মোবাইল ফোনে ও ব্যবহার করতে পারবেন।

আমার আর্টিকেলটি সম্পর্ন পড়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। কোনো বিষয়ে বুঝতে বা জানতে চাইলে নিচে কমেন্ট করে জানাবেন। ধন্যবাদ।

No comments:

Post a Comment